চাণক্য
চাণক্য ছিলো মৌর্য্য সাম্রাজ্যের সম্রাট চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য্যের রাজনৈতিক উপদেষ্টা । চাণক্য নিয়ে আলোচনার আগে মৌর্য্য সাম্রাজ্য নিয়ে ধারনা দিয়ে নেই ।
মৌর্য্য সাম্রাজ্য ছিল ভারতবর্ষের ইতিহাসের সবচেয়ে বড় সাম্রাজ্য । এখন থেকে প্রায় তেইশ শত বছর আগে খ্রীষ্টপূর্ব ৩২২ থেকে খ্রীষ্টপূর্ব ১৮৫ সাল পর্যন্ত বর্তমান ইরান , আফগানিস্তান , পাকিস্তান , ভারত , নেপাল , ভূটান এমনকি বাংলাদেশ পর্যন্ত পন্চাশ লক্ষ বর্গকিমি এর বেশী এলাকা জুড়ে বিস্তৃত ছিল এই সাম্রাজ্য ।
চাণক্য মূলত ছিলেন চন্দ্রগুপ্ত মৌর্য্যের রাজ-উপদেষ্টা । কখনো কৌটিল্য , কখনো বিষ্ণুগুপ্ত ছদ্মনামে পরিচিত হওয়া চাণক্য ব্রাক্ষন পরিবারে জন্মগ্রহন করলেও পরে আজিবীক এবং শেষ জীবনে এসে জৈন ধর্ম গ্রহন করেন ।
রাজ-উপদেষ্টার পাশাপাশি তিনি ছিলেন প্রাচীন ভারতের তক্ষশীলা বিশ্ববিদ্যালয়ের অধ্যাপক । তার রচিত গ্রন্থগুলোর মাঝে কৌটিল্যের অর্থশাস্ত্র এবং চাণক্য নীতি অন্যতম । মূলত অর্থনীতি , রাষ্ট্রনীতি , সামরিক কৌশল , শাসকের ভূমিকা এসব লিখেন ।
শত্রুপক্ষের উপর নজরদারিতে চাণক্যের পরিকল্পনা ছিল অসাধারন । মূলত শক্তিশালী গোয়েন্দাবাহিনীর জন্যেই মৌর্য্য সাম্রাজ্য দিন দিন বিস্তৃত হতে থাকে । তামিল কিছু অন্চল বাজে ভারতবর্ষের অধিকাংশ অন্চল এবং এর আশেপাশের অন্চল মৌর্য্য সাম্রাজ্যের অধীনে চলে আসে ।
মূলত চাণক্যের বুদ্ধিমত্তা , দূরদর্শিতা , গোয়েন্দাবাহিনীর সক্রিয়তার কথা চিন্তা করেই মহাবীর আলেকজান্ডার সারা পৃথিবীর বিশাল অংশ দখল করলেও ভারতবর্ষ আক্রমণ করার সাহস পায় নি ।
বর্তমান যুগেও অর্থনীতি , রাষ্ট্রনীতি , সমরকৌশলে চাণক্যের বইগুলোর ভূমিকা অনেক ।

No comments:

Post a Comment

| Designed by Geek