উত্তর কোরিয়া
এ যেন এক আজব দেশ । সারা পৃথিবী যে নিয়মে চলে , উত্তর কোরিয়া যেন তার ঠিক উল্টোপথে হাটে । আমাদের সমাজে যেসব কাজ স্বাভাবিক , উত্তর কোরিয়ায় তা কখনো কখনো অস্বাভাবিক তো বটেই , কখনো কখনো মৃত্যুদন্ডে পর্যন্ত দন্ডিত হতে হয় । আবার যেসব কাজ আমাদের সমাজে অপরাধ হিসেবে বিবেচনা করি , সেসব কাজ আবার উত্তর কোরিয়ার আইন অনুসারে স্বাভাবিক । উত্তর কোরিয়ার এমন সব অদ্ভুত আর আজব ব্যাপারগুলো নিয়েই আজকের আয়োজন ।
উত্তর কোরিয়ায় প্রতি পাঁচ বছর পর পর নির্বাচন হয় । তবে মজার ব্যাপার হলো ,ব্যালট পেপারে কেবল একটা অপশন ই থাকে ভোট দেয়ার জন্যে । বিরোধী দল বলতে কোন কিছুর অস্তিত্বই নেই উত্তর কোরিয়ায় ।
কেউ যদি ওখানকার আদালতে অপরাধী হিসেবে সাব্যস্ত হয় , তবে তার শাস্তি তিন প্রজন্ম ধরে পেতে হয় । মানে আপনি অপরাধ করলে আপনার দাদা , বাবা এবং আপনার ছেলের জন্য একই শাস্তি প্রযোজ্য হবে অপরাধ করুক আর না করুক ।
উত্তর কোরিয়ায় মাত্র তিনটি রাষ্ট্রীয় টিভি চ্যানেল রয়েছে । কোন বেসরকারি টিভি চ্যানেল নেই ।
রাজধানীতে কেবলমাত্র সমাজের এলিট শ্রেনির মানুষরাই বসবাস করতে পারে ।
কোন ট্রাফিক লাইট নেই উত্তর কোরিয়ায় । শুধুমাত্র হাতের ইশারাই ভরসা ট্রাফিক নিয়ন্ত্রনে ।
ফসল ফলানোর জন্য মানুষের জৈব বর্জ্য সার হিসেবে ব্যবহার করে উত্তর কোরিয়ায় ।
পৃথিবীর মোটামুটি সব দেশেই মারিজুয়ানা নিষিদ্ধ হলেও উত্তর কোরিয়ায় মারিজুয়ানা সেবন সম্পূর্ণ বৈধ ।
স্বাভাবিক সংগীতচর্চা নিষিদ্ধ , কেবলমাত্র সরকারের প্রশংসাসূচক গান করা যেতে পারে তবে কেবলমাত্র সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে ।
পর্ণ তৈরী করা কিংবা দেখার শাস্তি মৃত্যুদন্ড।
বাইরের দেশের কারো সাথে ব্যক্তিগত যোগাযোগ রাখা কিংবা ব্যক্তিগত কাজে দেশের বাইরে যাওয়ার শাস্তি মৃত্যুদন্ড ।
এমনই সব আজব আজব ব্যাপার নিয়েই উত্তর কোরিয়া , যেনো পৃথিবীর ভিতর আরেক পৃথিবী ।

No comments:

Post a Comment

| Designed by Geek